হলুদ অনুষ্ঠানে কণের সামনে টেবিলে নানা ধরনের খাবার সাজিয়ে রাখা হয়।

তবে এইক্ষেত্রে দুই ধরনের খাবার রাখা ভালো। প্রথম ধরনের খাবার থাকবে কণেকে খাইয়ে দেয়ার জন্য। আর দ্বিতীয় ধরনের খাবার রাখা যেতে পারে টেবিলের সৌন্দর্য বারানোর জন্য যেনো অতিথিরা দেখে মুগ্ধ ও আনন্দিত হয়।

কণেকে খাওয়ানোর জন্য খাবার তৈরি করার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেনো এমন কোনো খাবার যেন রাখা না হয় যা অল্প খাবার পরই পেট ভরে যায় বা ক্ষুধা চলে যায়। কাবাব বা মিষ্টি জাতীয় খাবার এক্ষেত্রে এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। ফল, চিপস, জেলো পুডিং বা পায়েস টাইপের খাবার এক্ষেত্রে বেশি উপযোগি।

খাবার নির্বাচনের ক্ষেত্রে কণের পছন্দ অপছন্দও খেয়াল করা উচিৎ। এক্ষেত্রে অবশ্যই কণের সাথে আলোচনা করে খাবার নির্বাচন করা উচিৎ।

এছাড়াও খেয়াল করা উচিৎ এমন কোনো খাবার রাখতে হবে যাতে কণের লিপিস্টিক বা মেকআপ নষ্ট না হয়। ফল ছোট ছোট টুকরো করে কাঠিতে গেঁথে রাখা যেতে পারে। ছোট আকৃতির মিষ্টিও এভাবে কাঠিতে গেঁথে খাওয়ানো যেতে পারে। চামচ দিয়ে খাওয়া যায় এমন খাবার রাখা যেতে পারে। যেমন জেলো পুডিং, পায়েশ, আইসক্রিম ইত্যাদি।

বিয়ের স্টেজ থেকে উঠে ওয়াশরুমে যাওয়াটা বেশ অস্বস্থিজনক। এই কারনে পিপাসা লাগতে পারে এমন খাবার বা ঝাল খাবার এড়িয়ে যাওয়া ভালো। এছাড়াও জুস বা সফট ড্রিংস পছন্দ হলেও না খাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

সাজানোর জন্য যে খাবারগুলো রাখা হবে তা তৈরি করার জন্য বিভিন্ন উজ্জ্বল রঙ্গের খাবারগুলোকে প্রাধান্য দেওয়া যেতে পারে। যেমন লাল বা সবুজ ক্যপসিকাম, কমলা, মাল্টা, আপেল, কাঠবাদাম ইত্যাদি।

এখানে খাবারগুলো তৈরি করার কিছু অভিনব আইডিয়া দেয়া হলো যা অতিথিদের সহজে চমৎকৃত করতে পারে। বিয়ে বাড়িতে সকলে ব্যস্ত সময় কাটায়। এই কথা মাথায় রেখে সহজে তৈরি করা যাবে এমন কিছু আইডিয়া দেয়া হলো এখানে।

Related Post


Leave a Reply


SIGN INTO YOUR ACCOUNT CREATE NEW ACCOUNT

Your privacy is important to us and we will never rent or sell your information.

 
×
CREATE ACCOUNT ALREADY HAVE AN ACCOUNT?

 
×
FORGOT YOUR DETAILS?
×

Go up